অধিকাংশ মানুষই কি ভুল করে আসছে !?

বাপ-দাদারা কি এতদিন ভুল করে আসছেন!?
. অধিকাংশ মানুষই কি ভুল করে আসছে!?
. এত বড় বড় আলেম তো এভাবেই আমল করে আসছেন! তারা কি ভুল করে গেছেন!?

মূলতঃ এই তিনটি অজুহাতে মানুষ কুরআন ও সহীহ সুন্নাহর দাওয়াতকে পরিত্যাগ
করে।

অথচ “অধিকাংশ” মানুষ কোন দলীল নয়; দলীল হল কুরআন ও সহীহ সুন্নাহ।

অধিকাংশদের ব্যাপারে আল্লাহ্ তায়ালা কুরআনে কি বলেছেন–
• “অধিকাংশ মানুষ প্রকৃত ব্যাপার সম্পর্কে অবগত নয়” [সূরা ইউসুফ : ৬৮]
• “অধিকাংশই নির্বোধ” [সূরা মায়িদাহ : ১০৩]
• “অধিকাংশ লোকই অবগত নয়” [সূরা আনআম : ৩৭]
• “অধিকাংশই অজ্ঞ” [সূরা আনআম : ১১১]
• “অধিকাংশই জানে না” [সূরা আরাফ : ১৩১]
• “তুমি যতই প্রবল আগ্রহ ভরেই চাও না কেন, মানুষদের অধিকাংশই ঈমান আনবে
না” [সূরা ইউসুফ : ১০৩]
• “আমি তোমার নিকট সুস্পষ্ট আয়াত নাজিল করেছি, ফাসিকরা ছাড়া অন্য কেউ তা
অস্বীকার করে না; বরং তাদের অধিকাংশই ঈমান রাখে না” [সূরা বাকারাহ : ৯৯-১০০]
• “আমি তো তোমাদের কাছে সত্য নিয়ে গিয়েছিলাম, কিন্তু তোমাদের অধিকাংশই ছিলে সত্য অপছন্দকারী” [সূরা যুখরুফ:৭৮]
• “তাদের অধিকাংশকেই আমি প্রতিশ্রুতি পালনকারী পাইনি, বরং অধিকাংশকে ফাসিকই পেয়েছি” [সূরা আরাফ : ১০২]
• “তুমি যদি পৃথিবীর অধিকাংশ লোকের অনুসরন কর তাহলে তারা তোমাকে
আল্লাহর পথ হতে বিচ্যুত করে ফেলবে, তারা কেবল আন্দাজ-অনুমানের অনুসরন করে চলে; তারা মিথ্যাচার ছাড়া আর কিছুই করে না” [সূরা আনআম : ১১৬]
• ‘’তাদের অধিকাংশই কেবল ধারনার অনুসরন করে; সত্যের মোকাবেলায় ধারনা
কোন কাজে আসে না’’ [সূরা ইউসুফ : ৩৬]
• “অধিকাংশ মানুষ আল্লাহর প্রতি ঈমান আনে, কিন্তু সাথে সাথে শিরকও করে’’ [সূরা
ইউসুফ : ১০৬]
• “আমি কি তোমাদের জানাব কাদের নিকট শয়তানরা অবতীর্ণ হয়? তারা অবতীর্ণ
হয় প্রত্যেকটি চরম মিথ্যুক ও পাপীর নিকট। ওরা কান পেতে থাকে আর তাদের অধিকাংশই মিথ্যাবাদী’’ [সূরা শু’আরা : ২২১-২২৩]
• “তারা তাদের পিতৃ-পুরুষদের বিপথগামী পেয়েছিল। অতঃপর তাদেরই পদাংক
অনুসরন করে ছুটে চলেছিল। এদের আগের লোকদের অধিকাংশই গোমরাহ হয়ে গিয়েছিল” [সূরা সাফফাত : ৬৯-৭১]
• “আরবী ভাষায় কুরআন, জ্ঞানসম্পন্ন মানুষদের জন্য সুসংবাদবাহী ও সাবধানকারী। কিন্তু ওদের অধিকাংশই (এ কুরআন থেকে) মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে, কাজেই ওরা শুনবে না” [সূরা ফুসসিলাত : ১-৪]

• ‘তুমি যদি দুনিয়ার অধিকাংশ লোকের কথার অনুসরণ কর, তবে তারা তোমাকে আল্লাহর পথ হ’তে বিভ্রান্ত করে ফেলবে, তারা তো নিছক ধারণা ও অনুমানেরই অনুসরণ করে। আর তারা ধারণা ও অনুমান ছাড়া কিছুই করছে না’ (আন‘আম ৬/১১৬)

সুতরাং হে মুসলিম দাবীদার ভাই! আসুন আমরা “অধিকাংশের” অজুহাত বাদ দিয়ে  ””কুরআন” ও “সহীহ সুন্নাহর“” অনুসরন করি।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s